মাঠ থেকেই সৌম্য জানলেন ফিরছেন জাতীয় দলে

0
312

টুর্নামেন্টের মাঝপথে আকস্মিকভাবে ডাক পেলেন, উড়ে গিয়েছিলেন এশিয়া কাপ খেলতে। সৌম্য সরকার একই ভাবে অন্তর্ভুক্ত হলেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে। আজ খুলনা থেকে রওনা দিয়ে কাল সকালে চট্টগ্রামে যোগ দিচ্ছেন বাঁহাতি ওপেনার
সকালেও জাতীয় লিগের ম্যাচে ফিল্ডিং করেছেন, বোলিং করেছেন। উইকেটও পেয়েছেন। তৃতীয় দিনের মধ্যাহ্ন বিরতিতে জানতে পারলেন, তাঁকে আর ম্যাচটা খেলতে হবে না! সৌম্য সরকারকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে। শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে রাজশাহীর বিপক্ষে চার দিনের ম্যাচটি রেখে তড়িঘড়ি করে সৌম্যকে রওনা দিতে হচ্ছে ঢাকায়। আজ রাতে ঢাকায় এসে কাল সকালে তিনি দলের সঙ্গে যোগ দেবেন চট্টগ্রামে।

সৌম্যর অন্তর্ভুক্তি নিয়ে কদিন ধরেই গুঞ্জন ছিল। তবে যেহেতু প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলছেন, সেটি অসমাপ্ত রেখেই বাঁহাতি ওপেনার জাতীয় দলে যোগ দেবেন কি না সংশয় ছিল শুধু এটা নিয়েই। সৌম্যর দলে ফেরা নিয়ে মিনহাজুল আবেদীন বলেছেন, ‘হ্যাঁ, একটা ওয়ানডের জন্য তাঁকে আমরা নিচ্ছি। তবে দল থেকে কেউ বাদ যাচ্ছে না। ১৫ জনের জায়গায় দলটা হয়ে যাচ্ছে ১৬ জনের। তবে শেষ ম্যাচে নেওয়া মানে এই নিশ্চয়তা নেই যে তাঁকে শেষ ওয়ানডের একাদশে দেখা যাবে।’

এশিয়া কাপের দলে শুরুতে না থাকলেও সৌম্যকে আকস্মিকভাবে ইমরুল কায়েসের সঙ্গে উড়িয়ে নেওয়া হয়েছিল আরব আমিরাতে। ফাইনালে ব্যাটিং বিপর্যয়ে করেছিলেন ৩৩ রান। তবুও বাদ পড়েছিলেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে।

বাংলাদেশ দলে জায়গা না হলেও জাতীয় লিগে দুর্দান্ত খেলছিলেন সৌম্য। সবশেষ চার ম্যাচে করেছেন তিন ফিফটি ও এক সেঞ্চুরি। সেঞ্চুরি করেছেন বিকেএসপিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচেও। সৌম্যর আশা, ছন্দটা ধরে রাখবেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজেও, ‘মাঠ থেকেই খবরটা পেলাম। এভাবে সুযোগ পেয়ে স্বাভাবিকভাবেই ভালো লাগছে। গত কদিন ঘরোয়া ক্রিকেটে রান পেয়েছি। জিম্বাবুয়ের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচটাও ভালো করেছি। চেষ্টা করব সুযোগ পেলে সুযোগটা কাজে লাগাতে।’