ভিআর হেডসেটে নতুন অভিজ্ঞতা দেবে ফেসবুক

0
136

অকুলাস কোয়েস্ট নামের একটি ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি হেডসেটের ঘোষণা দিয়েছে ফেসবুক। নতুন এ হেডসেটের মাধ্যমে ভিআর শিল্প খাত পুনরুজ্জীবিত হবে বলে আশা করছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ বলেছেন, তাঁদের তৈরি অকুলাস কোয়েস্ট ভিআরের ক্ষেত্রে এমন অভিজ্ঞতা দেবে, যা আগে পেতে হলে উচ্চশক্তিসম্পন্ন পিসির সঙ্গে ভিআর ডিভাইস যুক্ত করার প্রয়োজন ছিল। নতুন হেডসেট ২০১৯ সালে বসন্তে বাজারে ছাড়া হবে। দাম হবে ৩৯৯ মার্কিন ডলার।

বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, যুক্তরাষ্ট্রের সান হোসের এক অনুষ্ঠানে মার্ক জাকারবার্গ বলেছেন, ১০০ কোটি মানুষ ভিআর ব্যবহার করবে—এমন লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে। তিনি কৌতুক করে বলেন, গত বছর এ অনুষ্ঠানে তিনি ভিআর নিয়ে যে লক্ষ্যের কথা বলেছিলেন, এ বছর তার মাত্র ১ শতাংশ অর্জন করতে পেরেছেন।

বাজার বিশ্লেষকেরা বলছেন, ভিআর যন্ত্রের বিক্রি কমে যাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছেন।

বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইডিসির গবেষক ব্রায়ান মা বলেন, ‘পরিষ্কার বোঝা যায়, ভিআর শিল্প খাত উঠে দাঁড়াতে পারছে না। এ বছর হেডসেট বাজারে আসার হার ২৩ শতাংশে পৌঁছাতে পারে।’

বাজার গবেষকেরা জানান, গত বছর অকুলাস গো হেডসেট বাজারে ছেড়েছিল ফেসবুক, যার দাম ১৯৯ মার্কিন ডলার। এটি ২ লাখ ৮৯ হাজার ইউনিট বিক্রি হয়েছে।

গবেষক ব্রায়ান মা বলেন, ভিআর হেডসেটের বাজার পাওয়ার ক্ষেত্রে বড় সমস্যা হচ্ছে কনটেন্ট। ভিআরের উপযোগী কনটেন্ট কম। ফেসবুক ও ইউটিউব কিছু কনটেন্ট নিয়ে কাজ করছে।

অকুলাস কোয়েস্ট টু হ্যান্ড কন্ট্রোলার ও বিল্ট ইন সেন্সরযুক্ত। এতে ব্যবহারকারী ছয় ডিগ্রি পর্যন্ত স্বাধীনতা পাবেন। অর্থাৎ ভিআর জগতে তিনি কিছুটা নড়াচড়ার সুযোগ পাবেন।


Warning: A non-numeric value encountered in /home/subarta/public_html/wp-content/themes/Newspaper/includes/wp_booster/td_block.php on line 1008